বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে এডুকো

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে এডুকো
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে এডুকো

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৪,১০০ পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে আন্তর্জাতিক মানবিক উন্নয়ন সংস্থা এডুকো বাংলাদেশ। সংস্থাটি সিরাজগঞ্জ ও শরীয়তপুর জেলার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ ৪,১০০ চরম দরিদ্র পরিবারকে ‘বাংলাদেশের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য জরুরি সহযোগিতা’ প্রকল্পের মাধ্যমে সহায়তা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) এডুকোর কমিউনিকেশনস ম্যানেজার ফারহানা খান পুষ্পা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সিরাজগঞ্জ জেলার কাজীপুর ও সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা এবং শরীয়তপুর জেলার জাঞ্জিরা ও শরীয়তপুর সদর উপজেলায় সবচাইতে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে এই সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এডুকো বাংলাদেশের সহযোগী সংস্থা ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম (এনডিপি)র মাধ্যমে সিরাজগঞ্জ জেলায় এবং শরীয়তপুর ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি (এসডিএস)রমাধ্যমে শরীয়তপুর জেলায় প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হয়েছে।

সহায়তা প্যাকেজে অন্তর্ভুক্ত ছিল খাদ্য এবং স্বাস্থ্যসুরক্ষা সামগ্রী যার মাধ্যমে প্রতিটি পরিবার কমপক্ষে ১৫ দিনের জন্য খাদ্য সহায়তা (১৫ কেজি চাল, ৩ কেজি আলু, ২ কেজি ডাল, ১ লিটার রান্নার তেল (ভিটামিন এ এবং ডি সুরক্ষিত), ১ কেজি আয়োডিনযুক্ত লবণ, ১ কেজি চিনি) এবং স্বাস্থ্যসুরক্ষা সামগ্রী (সাবান, ১ কেজি ডিটারজেন্ট পাউডার, ২ প্যাক স্যানিটারি ন্যাপকিন, ২০টি মাস্ক) পেয়েছে। এছাড়া এই পরিবারগুলো পানি পরিশোধনের জন্য ২০পিস করে পানি পরিশোধক ঔষধ (হ্যালোজেন -১৫ গ্রাম)পেয়েছে, যা এই বন্যা পরিস্থিতিতে জলবাহিত রোগ এড়াতে অত্যাবশ্যকীয় ছিল।

এডুকো বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদুল হামিদ বলেন, ‘বন্যার ভয়াবহতা বিবেচনায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষগুলোর তাৎক্ষণিক সহায়তা জরুরি ছিল। কোভিড-১৯ পরিস্থিতি ও বন্যার ক্ষয়ক্ষতি মাথায় রেখে আমরা দ্রুত গৃহহীন ও আটকে পড়া পরিবারগুলিকে সাধ্যমতো সহায়তা করেছি এবং খাদ্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী দুর্গত মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছি। এই ৪,১০০ পরিবারের মাধ্যমে আমরা প্রায় ২০,০০০ মানুষের পাশে দাঁড়াতে পেরেছি। ১০,০০০ শিশুর প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে পেরেছি।’

সর্বশেষ আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০২০, ২১:২৯
নিজস্ব প্রতিবেদক

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে একুশ শতক

সর্বশেষ আপডেট

বিনোদন